১৮, ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, সোমবার | | ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪০

এবার সড়ক পথে নেপাল ভ্রমন

বর্তমানে নেপালের হিমালয়ের সৌন্দর্য দেখার প্রবল ইচ্ছে দমিয়ে রাখার যুদ্ধ চলছে অনেকের মধ্যে। অনেকেই জানেন না, বিমানে না গিয়ে বাসেও যাওয়া যায়। সেটা তুলনামূলক কম ঝুঁকির আর খরচও অনেক কম। এদিকে সড়ক পথে নেপাল যেতে হলে প্রথমেই আপনাকে হরিদাসপুর/গেদে পোর্টের ইন্ডিয়ান ট্রানজিট ভিসা লাগবে। ভিসা ঝামেলা শেষে ভারতের উদ্দেশ্যে রওনা দিন। হরিদাসপুর বর্ডার থেকে শিলিগুড়ি চলে যান। সেখান থেকে পানির টাংকি যেতে হবে। বাস ভাড়া ২০ রুপি। ইমিগ্রেশনের কাজ শেষ করে কাকরভিটা থেকেই পোখরা যাবার বাস পাবেন। ভাড়া নেবে ১২০০-১৪০০ নেপালি রুপি। সময় লাগবে ১২ থেকে ১৪ ঘণ্টা। এরপর পোখরার লেক সাইডে হোটেল পেয়ে যাবেন। পোখরাতে সাইট সিয়িং এর জন্য রিজার্ভ কার বা টাক্সি নিতে পারেন সারা দিনের জন্য। ভাড়া নেবে গাড়ি প্রতি তিন থেকে চার হাজার পাঁচশত টাকার মধ্যে। তারাই সব স্পট ঘুরিয়ে দেখাবে। সরংকোটে সূর্যোদয় দেখা থেকে ভ্রমনের শুরু, ডেভিস ফলস, গোখড়া মিউজিয়াম, আন্তর্জাতিক মিউজিয়াম, হোয়াইট রিভার, ভেত কেব, ফেওয়া লেক, বেতনাস লেক ইত্যাদি। তাছাড়া ইচ্ছে হলে প্যারাগ্লাইডিং, আল্ট্রা লাইট ফ্লাইট, রাফটিং, ট্রাকিং করতে পারেন। এদিকে বাসে ভাড়া নেবে ৪৫০-৭০০ রুপি। শপিং করতে পারেন এই শহরে, ভালো মানের অনেক মল আছে কাঠমান্ডুতে। দেখতে পারেন দরবার স্কয়ার, নাগারকোট, সয়ম্ভু, বাঘ বাজার ইত্যাদি। এদিকে নেপালের কাঠমান্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি দুর্ঘটনার পর অনেকেই বিমানে ভ্রমন করতে ইচ্ছুক না, এর জন্য সরক পথে ঘুরে আসতে পারেন আপনিও।