১৮, ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, সোমবার | | ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪০

জিজিএ বাংলাদেশের আয়োজনে সেমিনার ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

গ্লোবাল গুডউইল এম্বাসেডর (জিজিএ) বাংলাদেশ এর আয়োজনে ক্লিন এন্ড গ্রীন বাংলাদেশ শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠক ও পুনর্মিলনীর আয়োজন করা হয় গতকাল সন্ধ্যায় বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র, বাংলামটর এ। আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আমেরিকার বিখ্যাত বিজ্ঞনী বাংলাদেশের কৃতি সন্তান ও গর্ব ডঃ মইনুদ্দিন সরকার এবং তার সহধর্মিণী ডঃ আঞ্জুমান আরা শেলি, জিজিএ বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আওলাদ হোসেন ভুঁইয়া, ব্লোল্ড এর প্রেসিডেন্ট কাজী এম আহমেদ, ব্লোল্ডের সেক্রেটারী জেনারেল মইনুদ্দিন চোধুরি, বিএসএইচআরএম এর এক্সিকিউটিভ কাউন্সিলর শিবলী এইচ আহমদ, জিজিএ ডিরেক্টর ইউসুফ ইফতি সহ বিভিন্ন সেক্টরের পেশাজীবী, উদ্যোক্তা, পরিবেশকর্মী, সমাজকর্মী ও প্রশিক্ষন পেশাজীবিসহ ৬০ জন জিজিএ বাংলাদেশের প্রতিনিধি। জিজিএ বাংলাদেশ হচ্ছে জিজিএ গ্লোবাল এর বাংলাদেশের পার্ট। সারা পৃথিবী জুড়েই এর কর্মীরা কাজ করে মানবতার উন্নয়নে। জিজিএর মূল লক্ষ্য হচ্ছে কিভাবে মানুষের উন্নয়ন ও সহযোগিতার মাধ্যমে দেশ থেকে দারিদ্র, অশিক্ষা, অন্যায়, অবিচার, বৈষম্য, সমাজ ও আইন বহির্ভূত আচরণ, অমানবিক কার্যকলাপ দূর করা যায়। জিজিএ এর মূল কাজই হচ্ছে মানবিক উন্নয়ন তথা সামাজিক এবং পরিবেশগত স্থায়ি উন্নয়ন। জাতিসংঘের যে মূল গ্লোবাল সাস্টেইনেবল গোল (এসডিজি) আছে সেইগুলোকে প্রচার ও ব্যবহারিক জীবনে প্রয়োগের মাধ্যমে দেশ ও জাতির স্থায়ী অর্থনৈতিক ও মানবিক উন্নয়ন নিশ্চিত করা। কিভাবে বাংলাদেশের সামজিক ও অর্থনৈতিক উন্নতি নিশ্চিত করা যায়, পরিবেশকে পরিচ্ছন্ন রাখা যায় ও আরো বেশি সবুজ করা যায়, কিভাবে আরো কর্মসংস্থান সৃষ্টি বেকারত্ব দূর করা যায় এইসব বিষয়গুলো নিয়ে অত্যন্ত সুনির্দিষ্টভাবে আলোকপাত করেন আমেরিকার বিশ্ববিখ্যাত বিজ্ঞনী বাংলাদেশের কৃতি সন্তান ও গর্ব ডঃ মইনুদ্দিন সরকার। তিনি বাংলাদেশের মানুষের জন্য এখন থেকে প্রতিটি মুহূর্ত কাজ করতে চান। কিভাবে করবেন সে বিষয়ে পরিস্কার দিক নির্দেশনা দেন ও সহযোগিতার আশ্বাস দেন। আগামির জিজিএ এর কর্ম পরিকল্পনা, আর্থসামাজিক ও মানবিক উন্নয়ন নিয়ে আরো বক্তব্য দেন কাজী এম আহমেদ, মইনুদ্দিন চোধুরি, শিবলী এইচ আহমদ, ডঃ শাহিদা আক্তার, এটিএম আশরাফুল হক, নাজিয়া জাফরিন, ডালিয়া নওরিন, এটিএম মহিউদ্দিন সহ অনেক গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। এই অনুষ্ঠানে মিডিয়ার অনেক প্রতিনিধিও উপস্থিত ছিলেন। সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে জিজিএ বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আওলাদ হোসেন ভুঁইয়া অনুষ্ঠান এর সমাপ্তি ঘোষণা করেন।