১৮, ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, সোমবার | | ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪০

একটি চক্র শ্রমিক অসন্তোষ ঘটিয়ে উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে চায়: শিল্প মন্ত্রী

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯

একটি চক্র শ্রমিক অসন্তোষ ঘটিয়ে উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে চায়: শিল্প মন্ত্রী

মোঃ সালাহউদ্দিন আহম্মেদ: নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় ঘোড়াশাল পলাশ ইউরিয়া ফার্টিলাইজার প্রকল্প (জিপিইউএফপি) পরিদর্শনকালে শিল্প মন্ত্রী বলেন, ‘আজকে আমাদের বছরে প্রায় ১৭ লাখ মে. টন সার আমদানি করতে হয়। জিপিইউএফপি প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে আমাদের আর আমদানি নয় বরং রফতানি করতে পারবো। বর্তমানে পলাশ উপজেলায় ইউএফএফএল ও পিইউএফএফএল নামের যে দুইটি সরকারখানা রয়েছে। এ কারখানা দুটি প্রতি টন ইউরিয়া উৎপাদনে গ্যাসের ব্যবহার, ডাউন টাইম এবং রক্ষণাবেক্ষণ পুনরাবৃত্তির হার অস্বাভাবিক বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে বিসিআইসি পলাশ ইউরিয়া সরকারখানার স্থলে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে বিল্ডার ফাইনেন্স পদ্ধতিতে দৈনিক ২ হাজার ৮’শ মে. টন (বার্ষিক ৯ লাখ ২৪ হাজার মে. টন) গ্রানুলার ইউরিয়া উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন একটি সর্বাধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর, শক্তি সাশ্রয়ী ও পরিবেশ বান্ধব সারকারখানা স্থাপন করতে যাচ্ছে।

শিল্পমন্ত্রী আরো বলেন, দেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে নিয়ে যাওয়ার লক্ষে কাজ করছে বর্তমান সরকার। এই স্বপ্ন পূরণে কৃষির পাশাপাশি কারখানার শ্রমিকরাও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। কিন্তু একটি চক্র শ্রমিক অসন্তোষ ঘটিয়ে উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে চায়। ভবিষ্যতে কেউ যেন শ্রমিকদের ভুল বুঝিয়ে রাস্তায় নামাতে না পারে সে ব্যাপারেও সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করেন।ঘোড়াশাল পলাশ ইউরিয়া সারকারখানা প্রকল্প পরিচালক মোঃ রাজিউর রহমান মল্লিকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, শিল্প প্রতিমন্ত্রী এড.কামাল আহমেদ মজুমদার, নরসিংদী-২ পলাশ আসনের এমপি ডাঃ আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলীপ, নরসিংদী-৩ শিবপুর আসনের এমপি জহিরুল হক ভূইয়া মোহন, বিসিআইসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো.আমিন উল আহসান, নরসিংদী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন ভূঁইয়া, শিল্প মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব জিয়াউর রহমান খান, পলাশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভাস্কর দেবনাথ বাপ্পি, পলাশ উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ জাবেদ হোসেন, ঘোড়াশাল পৌর মেয়র আলহাজ্জ্ব শরীফুল হক শরীফ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহরিয়ার আলম, পলাশ থানার (ওসি) মকবুল হোসেন মোল্লা প্রমুখ।